প্রচ্ছদ > বিনোদন > আনন্দালোকে > মেতে উঠুন বিশ্বকাপের গানে
মেতে উঠুন বিশ্বকাপের গানে

মেতে উঠুন বিশ্বকাপের গানে

১২ জুন ব্রাজিলের সাও পাওলোতে পর্দা উঠবে বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১৪-র। অফিশিয়াল থিম সংসহ বিশ্বকাপ নিয়ে ৫টি গানে মেতে উঠুন ফুটবল উৎসবের।

১. উই আর ওয়ান (ওলে ওলা)-পিটবুল, জেনিফার লোপেজ, ক্লদিয়া লেইত্তে
আন্তর্জাতিক ফুটবল সংস্থা ‘ফিফা’ এবারের বিশ্বকাপের অফিসিয়াল থিম সং হিসেবে নির্বাচন করেছে ‘উই আর ওয়ান’ (ওলে ওলা) গানটিকে। গানটি গেয়েছেন কিউবান-আমেরিকান র‌্যাপার পিটবুল। আর তাকে সঙ্গ দিয়েছেন মার্কিন পপতারকা জেনিফার লোপেজ ও ব্রাজিলিয়ান পপতারকা ক্লদিয়া লেইত্তে। তবে গানটি প্রকাশিত হওয়ার পর খোদ ব্রাজিলেই আপত্তির ঝড় ওঠে। প্রথমত, সাম্বার দেশ ব্রাজিলের সংস্কৃতির সঙ্গে গানটা ঠিক মানানসই নয়। দ্বিতীয়ত, গানটির দুই শিল্পী পিটবুল ও জেনিফার লোপেজ বিদেশি, যারা বেশিরভাগ সময়ে ইংরেজি আর পর্তুগিজ ভাষায় গান করেন। ব্রাজিলিয়ান গায়িকা ক্লদিয়া লেইত্তে পর্তুগিজ ভাষায় গানটিতে কণ্ঠ দিলেও তার অংশ শেষের দিকে মাত্র কয়েক সেকেন্ড। এছাড়া গানের মিউজিক ভিডিওটিও অনেকের মতে বেশ সস্তা মানের যেখানে ব্রাজিলকে একটি গৎবাঁধা ধাঁচে ফেলে দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছে।

২. লা লা লা (ব্রাজিল ২০১৪)-শাকিরা
কলাম্বিয়ান সুপারস্টার শাকিরার ‘ওয়াকা ওয়াকা (দিস টাইম ফর আফ্রিকা)’ গানটি গত বিশ্বকাপের (২০১০) অফিসিয়াল থিম সং ছিল। এবারের বিশ্বকাপ উপলক্ষে শাকিরা যে গানটি গেয়েছেন তার মধ্যেও ‘ওয়াকা ওয়াকা’র ছোঁয়া খুঁজে পাওয়া যাবে। ছন্দময় এই গানটি জাতিসংঘের ‘ওয়ার্ল্ড ফুড প্রোগ্রাম’-এর অংশ হিসেবে তৈরি হয়েছে। সহায়তায় আছে ফ্রান্সের ডানোন গ্রুপের ‘অ্যাক্টিভিয়া’ ব্র্যান্ড। গানের মিউজিক ভিডিওতে শাকিরা যথারীতি সাম্বার আদলে নেচেছেন। স্প্যানিশ ফুটবল ক্লাব ‘বার্সেলোনা’র খেলোয়াড়দের উপস্থিতি ভিডিওটিকে আলাদা মাত্রা দিয়েছে। ভিডিওতে অংশ নিয়েছেন শাকিরার প্রেমিক জেরার্ড পিকে (স্পেন)। এছাড়াও আছেন সেস ফ্যাব্রিগাস (স্পেন), লিওনেল মেসি (আর্জেন্টিনা) ও সার্জিও অ্যাগুয়েরো (আর্জেন্টিনা)। এছাড়া গানটিতে শাকিরার এক বছর বয়সী ছেলেকেও দেখা যায়। ‘ফিফা’ গানটিকে অফিসিয়াল থিম সং হিসেবে নির্বাচন না করলেও অনেক ফুটবলবোদ্ধা আর ফুটবলপ্রেমীর কাছে এটাই এবারের বিশ্বকাপের শ্রেষ্ঠ গান।

৩. অলওয়েজ লুক অন দ্য ব্রাইট সাইড অফ লাইফ-মন্টি পাইথন
ইংল্যান্ড দলের মনোবল বাড়াতে দলের অফিশিয়াল অ্যান্থেম হিসেবে ‘অলওয়েজ লুক অন দ্য ব্রাইট সাইড অফ লাইফ’ গানটিকে বাছাই করা হয়েছে। এটি মূলত ইংল্যান্ডের মন্টি পাইথন থিয়েটার দলের ‘লাইফ অফ ব্রায়ান’ সিনেমার শেষদৃশ্যে ব্যবহৃত গান।

৪. জিনেদিন জিদান-ভদভিল স্ম্যাশ
অস্ট্রেলিয়ান ব্যান্ড দল ভদভিল স্ম্যাশ ২০০৬ বিশ্বকাপ নিয়ে একটি গান মুক্তি দিয়েছে এবারের বিশ্বকাপে। এই গানের কেন্দ্রে আছেন ১৯৯৮ সালের বিশ্বকাপজয়ী ফ্রান্স দলের তারকা মিডফিল্ডার জিনেদিন জিদান। তার নামেই গানটির নামকরণ করা হয়েছে। ২০০৬ সালের বিশ্বকাপে ইতালির সঙ্গে ফাইনাল খেলে ফ্রান্স। খেলার সময় ইতালির মার্কো মাতারাজ্জিকে মাথা দিয়ে গুতো মেরে সমালোচিত হন তিনি। রেফারি লালকার্ড দেখিয়ে মাঠ থেকে বের করে দেন তাকে, বিশ্বকাপটা ওঠে ইতালির হাতে। এই ঘটনা নিয়েই গান বানিয়েছে ভদভিল স্ম্যাশ। গানটি ইউটিউবে প্রকাশের এক সপ্তাহের মধ্যেই ভাইরাল হয়ে যায়। মাত্র ৭ দিনে গানটি দেখে ৪ লাখ ৩০ হাজার জনেরও বেশি দর্শক। গোটা গানজুড়ে অস্ট্রেলিয়ান ক্রীড়া সাংবাদিক লে মারে বিখ্যাত সব ফুটবল খেলোয়াড়দের নাম পড়ে যান। আর ভিডিওতে জিদানের চেহারার মুখোশ পড়ে বেশ কিছু মানুষ তাদের ফুটবলনৈপূণ্য দেখায়।

৫. রেড, হোয়াইট এন্ড ব্লু
১৯৯৪ সালের বিশ্বকাপের আয়োজক ছিল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। সেই স্মৃতি নিয়েই তৈরি হয়েছে ‘রেড, হোয়াইট এন্ড ব্লু’ গানটি। ১৯৯৪ সালের যুক্তরাষ্ট্র দলের তারকা খেলোয়াড় অ্যালেক্সি লালাসকে দেখা যাবে এই গানের মিউজিক ভিডিওতে। লালচুলো এই খেলোয়াড় গানে যুক্তরাষ্ট্র ফুটবল দলের সম্ভাবনার কথা বলেন।

Share and Enjoy !

0Shares
0 0

Comments

comments

Comments are closed.