প্রচ্ছদ > বিনোদন > আনন্দালোকে > আসছে তারবিহীন ডিশ, দেখা যাবে ২৫০টি চ্যানেল
আসছে তারবিহীন ডিশ, দেখা যাবে ২৫০টি চ্যানেল

আসছে তারবিহীন ডিশ, দেখা যাবে ২৫০টি চ্যানেল

রাস্তায় ডিশ ব্যবসায়ীদের তারের জটলা আর বাসায় টেলিভিশনে বিভিন্ন চ্যানেলের ঝিরঝির চিত্র মেনে নিয়ে আর বেশি দিন মোটা অঙ্কের বিল দেওয়ার বাধ্যবাধকতা থাকছে না। হঠাৎ করে ডিশ লাইন বিচ্ছিন্ন হওয়া কিংবা অল্প চ্যানেল দেখে মাস শেষে মোটা অঙ্কের বিল পরিশোধেও বাধ্য করতে পারবে না স্থানীয় মাস্তান ও ডিশ ব্যবসায়ীরা। কারণ, শিগগিরই বাংলাদেশে চালু হচ্ছে তারযুক্ত ডিশ ব্যবস্থার বিকল্প ডিটিএইচ (ডিরেক্ট টু হোম) ব্যবস্থা, যাতে ২৫০টি চ্যানেল দেখা যাবে।
কোনো তার থাকবে না, ঝিরঝির হবে না। পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে দেখা বিব্রতকর অথবা অন্য কোনো কারণে দেখতে চান না, এমন চ্যানেলগুলো বন্ধ করে রাখতে পারবেন নিজেই। প্রতি মাসে ডিশ বিল বাবদ ৩০০ থেকে ৪০০ টাকা গোনারও দরকার হবে না। কারণ ডিটিএইচ ব্যবস্থায় বিলের পরিমাণ হবে আরো কম। এ বছরই রাশিয়ার একটি কম্পানির সঙ্গে যৌথভাবে ডিটিএইচ বাজারে নিয়ে আসার কথা রয়েছে বেক্সিমকো গ্রুপের প্রতিষ্ঠান বেক্সিমকো কমিউনিকেশন লিমিটেড ও আরেক প্রতিষ্ঠান বায়ার মিডিয়া লিমিটেডের।
তবে ডিশ ব্যবসায় কোনো নিষেধাজ্ঞা আরোপ করবে না সরকার। গ্রাহকের জন্য বিদ্যমান ডিশ লাইন ব্যবস্থা ও ডিটিএইচ সেবা উভয়ই উন্মুক্ত থাকবে। গ্রাহক তার পছন্দমতো যেকোনোটি গ্রহণ করতে পারবে। তবে ডিটিএইচ ব্যবস্থায় কম খরচ ও কম জটিলতায় অধিকসংখ্যক চ্যানেল এবং স্বচ্ছ ছবি ও শব্দ পাওয়া নিশ্চিত হবে বিধায় এ সেবার দিকেই গ্রাহকের ঝুঁকে পড়ার সম্ভাবনা।
ডিটিএইচ ব্যবস্থায় উচ্চ ক্ষমতাধর জিওস্টেশনারি স্যাটেলাইটের মাধ্যমে টেলিভিশন সিগন্যালকে গ্রাহকের টেলিভিশনে নিয়ে যায় একটি ছোট অ্যান্টেনা ও একটি স্যাটেলাইট রিসিভার। ভারতসহ বিভিন্ন দেশে এ ব্যবস্থা চালু আছে। গ্রাহকদের নির্দিষ্ট মূল্যে অ্যান্টেনা ও স্যাটেলাইট রিসিভার কিনে বাসায় স্থাপন করতে হয়। এ ছাড়া নির্দিষ্ট মেয়াদে ডিটিএইচ সরবরাহকারী কম্পানির কার্ড কিনে তা ব্যবহার করতে হয়। এই কার্ডের মূল্য বর্তমানে গ্রাহকদের দেওয়া ডিশ বিলের চেয়েও কম হবে।
তথ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা জানান, লাইসেন্সের শর্তে বলা হয়েছে, ডিটিএইচ সেবাকারী প্রতিষ্ঠানগুলো সরকার অনুমোদিত টিভি চ্যানেলসহ সর্বাধিক ২৫০টি চ্যানেল ডাউনলিংক করতে পারবে। ভবিষ্যতে এর অধিক চ্যানেল ডাউনলিংক করতে চাইলে সে জন্য কর্তৃপক্ষের আগাম অনুমোদন নিতে হবে।

Comments

comments

Comments are closed.