প্রচ্ছদ > লাইফস্টাইল > রূপচর্চা > সঙ্গে রাখুন মেকআপ কিটস
সঙ্গে রাখুন মেকআপ কিটস

সঙ্গে রাখুন মেকআপ কিটস

হাতের কাছে রাখুন মেকআপ কিটস। হালকা বা ভারী কোনো মেকআপ নিয়ে আর ভাবতে হবে না। অনেকেই মেকআপ কিটসে অপ্রয়োজনীয় কসমেটিকস রাখেন, যা প্রকৃতপক্ষে কোনো কাজেই আসে না। আর মেকআপ কিটস একটু নামি ব্র্যান্ড দেখে নেওয়া উচিত। দাম একটু বেশি হলেও ত্বক ভালো রাখতে সাহায্য করে। আর মেকআপ কিটস গায়ের রঙের সঙ্গে মানানসই হওয়া উচিত।

মেকআপ ব্র্যান্ড
মেকআপ কিটসের জন্য আমাদের দেশে জনপ্রিয় ব্র্যান্ডগুলো হলো ল্যাকমে, লরিয়েল, রেভলন, ওলে, মেবিলাইন, লাফেম, জর্ডানা, জ্যাকলিন ও ম্যাক। এ ছাড়া বিশ্বখ্যাত দামি ব্র্যান্ডগুলোর মধ্যে রয়েছে ক্রায়োলিন, ক্লিনিক, শ্যানেল, এসটিলোডার, ল্যানকম, ক্রিস্টিয়ান ডিওর, এলিক্স সেভেন ইত্যাদি। ব্র্যান্ড যাই হোক না কেন, তা পণ্যটি আসল কি না যাচাই করে কেনার পরামর্শ দিলেন সাইফুল ইসলাম।

মেকআপ ব্রাশ
ত্বকের সঙ্গে মেকআপকে ভালোভাবে মেশাতে বেশ কিছু ব্রাশের প্রয়োজন। এই ব্রাশগুলো বাজারে আলাদাভাবে কিনতে পাওয়া যায়। আবার সেট আকারেও পাওয়া যায়। ব্রাশ সেটে প্রয়োজনীয় সব ব্রাশই থাকে। এর মধ্যে রয়েছে বেইস ব্রাশ, আই ফেস, লিপ ব্রাশ, আইব্রো ব্রাশ, ব্লাশন ব্রাশ আর ফেস কাটার ব্রাশ। যেকোনো মেকআপের জন্যই এ ব্রাশগুলোই যথেষ্ট। ব্রাশ সেটে ব্রাশের সংখ্যার ওপর দাম নির্ভর করে। সাধারণত ৩৫০ থেকে ৮৫০ টাকার মধ্যেই পাওয়া যাবে ব্রাশ সেট।

কনসিলার
ত্বকে কোনো দাগ থাকলে বা চোখের ডার্ক সার্কেল আড়াল করার জন্য ব্যবহার হয় কনসিলার। কনসিলার দিয়েই মেকআপ শুরু করা হয়। গায়ের রঙের চেয়ে একটু গাঢ় রঙের কনসিলার বেছে নেওয়া উচিত। সাধারণ ব্র্যান্ডের কনসিলারের দাম ৩৫০ থেকে ৯০০ টাকা আর একটু নামি ব্র্যান্ড চাইলে পড়বে ৮৫০ থেকে ১৯৫০ টাকা।

ফাউন্ডেশন
কনসিলার লাগানোর পর ত্বকে ফাউন্ডেশন লাগান। গায়ের রঙের সঙ্গে মিলিয়ে ফাউন্ডেশন নির্বাচন করুন। অনেকেই গায়ের রঙের চেয়ে উজ্জ্বল ফাউন্ডেশন ব্যবহার করেন। সে ক্ষেত্রে মেকআপ ত্বকের সঙ্গে ভালোভাবে ব্লেন্ড হয় না। তাই ফাউন্ডেশন নির্বাচনে সতর্ক হোন। ফাউন্ডেশন দেওয়ার পর ভেজা স্পঞ্জ দিয়ে ত্বকে ভালোভাবে মিশিয়ে দিন। বাজারে সাধারণ ব্র্যান্ডের ফাউন্ডেশন ৩০০ থেকে ১২০০ টাকা আর নামি ব্র্যান্ডের ফাউন্ডেশন পাবেন ২৫০০ থেকে ৬০০০ টাকার মধ্যে।

প্যানকেক
রাতের জমকালো অনুষ্ঠানে একটু ভারী মেকআপ চাইলে ফাউন্ডেশনের ওপর প্যানকেক ব্যবহার করুন। সাধারণ মেকআপে প্যানকেক ব্যবহার না করাই ভালো। ভেজা স্পঞ্জ দিয়ে প্যানকেক ত্বকে খুব ভালোভাবে মিশিয়ে দিন। ত্বকের রঙের চেয়ে এক শেড উজ্জ্বল প্যানকেক ব্যবহার করুন। প্যানকেকের ক্ষেত্রে ব্লেন্ডিং ভালো হওয়া খুবই জরুরি। ব্র্যান্ডভেদে প্যানেকেকের দাম পড়বে ৩৫০ থেকে ৩৫০০ টাকা পর্যন্ত।

কমপ্যাক্ট পাউডার
মেকআপ বেইজ তৈরির শেষ ধাপ। হালকা মেকআপে ফাউন্ডেশনের পর আর ভারী মেকআপে প্যানকেকের পর কমপ্যাক্ট পাউডার ব্যবহার করুন। একে ফেস পাউডার বা লুজ পাউডারও বলে। সাধারণ কমপ্যাক্ট পাউডার কিনতে খরচ হবে ৩৫০ থেকে ১৩০০ টাকা আর দামি চাইলে ২২০০ থেকে ৩৫০০ টাকা গুনতে হবে।

শ্যাডো
বেইজ শেষ হলে চোখের পাতায় শ্যাডো লাগান। পোশাকের সঙ্গে মিলিয়ে শ্যাডো বেছে নিন। শ্যাডো ভালোভাবে ব্লেন্ড করতে শ্যাডো ব্রাশ ব্যবহার করুন। ব্র্যান্ডভেদে আইশ্যাডোর দাম পড়বে ২৫০ থেকে ৫৫০০ টাকা।

লাইনার, মাশকারা ও কাজল
শ্যাডো দেওয়া শেষ হলে চোখের পাপড়িতে মাশকারা লাগান। দিনের বেলায় ন্যাচারাল টোনের মাশকারা লাগান। আর রাতের অনুষ্ঠানে কালো মাশকারা এক বা দুই কোট দিন। এবার আইলাইনার দিয়ে চোখে লাইন করে দিন। লাইনারের বদলে কাজল বা রঙিন কাজলও ব্যবহার করতে পারেন। ব্র্যান্ডভেদে লাইনার ও মাশকারা পাবেন ২০০ থেকে ২৫০০ টাকায় আর কাজলের দাম পড়বে ৭০ থেকে ৩৫০ টাকা।

ব্লাশন
চোখের সাজ শেষ হলে এবার গালে ব্লাশন দিন। মুখের গড়ন অনুযায়ী ব্লাশন ব্যবহার করুন। গোল মুখে ব্লাশন হবে একটু ভি-আকৃতির। আর লম্বা মুখে একটু রাউন্ড করে ব্লাশন দিন। ব্লাশনের ক্ষেত্রে সাধারণ ব্র্যান্ড ২৫০ থেকে ৯০০ টাকা আর দামি ব্র্যান্ড ১৫০০ থেকে ২৫০০ টাকায় পাবেন।

লিপস্টিক
সবশেষে ঠোঁটে লিপস্টিক ব্যবহার করুন। প্রথমে লিপলাইনার দিয়ে ঠোঁট এঁকে নিন। লিপস্টিকের চেয়ে একশেড গাঢ় লাইনার দিন। এবার লিপস্টিক লাগান। লিপস্টিক ও লাইনারের জন্য আলাদা ব্রাশ ব্যবহার করুন। ব্র্যান্ডভেদে লিপস্টিকের দাম ১০০ থেকে ৩৩০০ টাকা। আর লাইনার পাবেন ৮০ থেকে ৩৫০ টাকার মধ্যে।

শিমার পাউডার
শাইনি পাউডার নামেও পরিচিত এটি। শুধু রাতের পার্টিতে ব্যবহার করুন। খুব হালকা করে নাকের ওপর লম্বা টান দিন। নাক খাড়া দেখাবে। আর গালের দুই পাশে ব্যবহার করুন। খুব দক্ষ না হলে শিমার ব্যবহার না করাই ভালো। ব্র্যান্ডভেদে শিমার পাউডারের দাম পড়বে ৭০০ থেকে ২০০০ টাকা।

যা যা লাগবে
* মেকআপ ব্রাশ সেট
* কনসিলার
* ফাউন্ডেশন
* প্যানকেক
* কমপ্যাক্ট বা ফেস পাউডার
* আইশ্যাডো
* লাইনার, মাশকারা ও কাজল
* ব্লাশন
* লিপস্টিক ও লিপলাইনার
* শিমার পাউডার

Comments

comments

Comments are closed.