প্রচ্ছদ > স্বাস্থ্য > অঙ্গীকার ফাউন্ডেশনের ব্লাড ডোনেশন আওয়ার্ড ২০১৯
অঙ্গীকার ফাউন্ডেশনের ব্লাড ডোনেশন আওয়ার্ড ২০১৯

অঙ্গীকার ফাউন্ডেশনের ব্লাড ডোনেশন আওয়ার্ড ২০১৯

রাইসুল করিম রিয়াদ :::

গত ৭ ডিসেম্বর ‘সম্পর্ক শুরু হোক রক্ত দিয়ে’ স্লোগানকে সামনে রেখে অঙ্গীকার ফাউন্ডেশনের আয়োজনে হয়ে গেল ‘ব্লাড ডোনেশন আওয়ার্ড ২০১৯’। আইইউবিএটি’র ওপেন অডিটোরিয়ামে আয়োজন করা হয় এ অনুষ্ঠানের। এতে অংশগ্রহণ করেন বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলার ২০টি রক্তদাতা স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন এবং দেড় শতাধিক স্বেচ্ছাসেবক রক্তদাতা। বাংলাদেশের সকল জেলার রক্তদাতা সংগঠনগুলোকে একত্রিত করার লক্ষ্যে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। আয়োজকদের আশাবাদ, এর মধ্য দিয়ে দেশের সকল রক্তদাতা সংগঠনের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপিত হবে এবং রক্তের অভাবে আর কোনো রোগী প্রাণ হারাবে না।

আয়োজকরা জানান, বাংলাদেশের যেকোনো প্রান্ত থেকেই রক্তের জন্য ফোন কল আসে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলোর কাছে। নিজ জেলার বাহিরে হলে অনেক ক্ষেত্রে সঠিক সময়ে রক্তদাতা পাঠানো সম্ভব হয় না। এই উদ্দেশ্যকে মাথায় রেখেই মূলত এই ভাবনা। অন্য জেলা সংগঠনের সঙ্গে সুসম্পর্ক তৈরি করা ও তাদের সাথে যোগাযোগ করেই এই রক্তের চাহিদা পূরণ করা সম্ভব হবে।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ছিলেন আইইউবিএটি’র উপাচার্য ডঃ আব্দুর রব। তিনি অনুষ্ঠানে আগত সকল রক্তদাতা সংগঠনগুলোর হাতে সম্মাননা ক্রেস্ট তুলে দেন। রক্তদাতাদের হাতে সম্মাননা তুলে দেন অঙ্গীকার ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মোঃ আরিফুল ইসলাম। প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে অঙ্গীকার ফাউন্ডেশনের এমন মহৎ উদ্যোগের জন্য আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানান ও ফাউন্ডেশনের সাফল্য কামনা করেন।

২০১৭ সালের প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে মানবতার জন্য কাজ করে যাচ্ছে অঙ্গীকার ফাউন্ডেশন। অঙ্গীকার ফাউন্ডেশন ৬টি বিষয় নিয়ে মানবকল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে। ফাউন্ডেশনের কার্যক্রমগুলো হলো-

১। স্বাবলম্বী
২। সম্পর্ক শুরু হোক রক্ত দিয়ে
৩। মানবিক সেবা
৪। বৃক্ষ ময়ভুবন
৫। মেধাবীদের জন্য শিক্ষার নিশ্চয়তা ও
৬। নারী সচেতনতা মূলক সেমিনার ।

অঙ্গীকার ফাউন্ডেশনের প্রেসিডেন্ট মোঃ আরিফুল ইসলাম বলেন, ‘আমরা মানবতার সেবায় কাজ করার জন্য অঙ্গীকারবদ্ধ হয়েছি। ভবিষ্যতে অঙ্গীকার ফাউন্ডেশন আরো ভালো ভালো কাজ করে মানুষের পাশে থাকবে। সবার ভালোবাসা আমাদের সামনে এগিয়ে যাওয়ার জন্য অনুপ্রাণিত করবে।’

.

Share and Enjoy !

0Shares
0 0 0

Comments

comments

Comments are closed.