প্রচ্ছদ > তথ্যপ্রযুক্তি > জেনে রাখুন > চিকিৎসা বিজ্ঞানে নোবেল পেলেন ৩ বিজ্ঞানী
চিকিৎসা বিজ্ঞানে নোবেল পেলেন ৩ বিজ্ঞানী

চিকিৎসা বিজ্ঞানে নোবেল পেলেন ৩ বিজ্ঞানী

চিকিৎসা বিজ্ঞানে ২০১৫ সালে যৌথভাবে নোবেল পুরস্কার পেলেন ৩ বিজ্ঞানী। সোমবার সুইডেনের স্টকহোমে ক্যারোলিনস্কা ইনস্টিটিউটে এই তিন বিজ্ঞানীর নাম ঘোষণা করা হয়।

কেঁচোকৃমি প্যারসাইটের কারণে সৃষ্ট ইনফেকশনের বিরুদ্ধে নতুন প্রতিষেধক তৈরি করায় ক্যাম্পবেল ও সাতোশিকে পুরস্কার দেয় হয়। তারা দু’জন যথাক্রমে আয়ারল্যান্ড ও জাপানের নাগরিক। এবং ম্যালেরিয়ার বিরুদ্ধে একটি থেরাপি আবিষ্কারের জন্য চীনা নাগরিক ইওইওতু কে এই পুরস্কার প্রদান করা হয়।

৯ লাখ ৬০ হাজার মার্কিন ডলার মূল্যের এই পুরস্কারের অর্ধেক পাবেন ক্যাম্পবেল ও সাতোশি এবং বাকি অর্ধেক পাবেন ইউইউ তু একাই।

পৃথিবীর প্রায় এক-তৃতীয়াংশ মানুষ কেঁচোকৃমি দ্বারা আক্রান্ত হন। রিভার ব্লাইন্ডনেস, লিমফ্যাটিক ফিলারিয়াসিসের মত অনেকগুলো রোগ সৃষ্টির কারণ এ পরজীবী। আইরিশ বংশোদ্ভুত ক্যাম্পবেল এবং জাপানী ওমুরা ‘অ্যাভারমেক্টিন’ নামে একটি নতুন ওষুধ উদ্ভাবন করেন, যা রিভার ব্লাইন্ডনেস, লিমফ্যাটিক ফিলারিয়াসিসসহ আরো কয়েকটি রোগের বিরুদ্ধে কাজ করতে সক্ষম প্রমাণিত হয়েছে। এ দুজন বিজ্ঞানী এ উদ্ভাবনের জন্য ২০১৫ সালে চিকিৎসাবিজ্ঞানে যৌথভাবে নোবেল পুরষ্কার পেতে যাচ্ছেন। ম্যালেরিয়াতে আক্রান্ত হয়ে প্রতি বছর ৪ লাখ ৫০ হাজারের বেশি মানুষ প্রতিবছর মারা যায়। এ রোগের সংক্রমণের ঝুঁকির মধ্যে বাস করা মানুষের সংখ্যা কোটিরও বেশি। ‘আর্টিমাইসিনিন’ নামে নতুন একটি ওষুধ আবিষ্কারের জন্য চীনা বিজ্ঞানী ইওইও এ বছর নোবেল জিতে নেন। তার আবিষ্কৃত এ নতুন ওষুধ ম্যালেরিয়ায় আক্রান্ত হয়ে মানুষের মৃত্যুর হার আশ্চর্জজনকভাবে কমিয়ে এনেছে।

একনজরে-

** যে তিনজন বিজ্ঞানী চিকিৎসাবিজ্ঞানে নোবেল পেলেন- উইলিয়াম সি. ক্যাম্পবেল, সোতোশি ওমুরা ও ইউইউ তু।

** যে দেশের নাগরিক- উইলিয়াম ক্যাম্পবেল আয়ারল্যান্ড, সোতোশি ওমুরা জাপান এবং ইউইউ তু চীনের নাগরিক।

** পুরষ্কারের মূল্যমান- ৮০ লাখ সুইডিস ক্রোনার বা ৯ লাখ ৫০ হাজার ডলার। এর অর্ধেক পাবেন ইওইওতু এবং বাকী অর্ধেক পাবেন । ** চীনের ইউইউ তু হলেন ত্রয়োদশ মহিলা, যিনি চিকিৎসাবিদ্যায় নোবেল পুরস্কার পেলেন।

** অবদান-

* ক্যাম্পবেল এবং ওমুরা ‘অ্যাভারমেক্টিন’ নামে একটি নতুন ওষুধ উদ্ভাবন করেন। এটি রিভার ব্লাইন্ডনেস, লিমফ্যাটিক ফিলারিয়াসিসসহ আরো কয়েকটি রোগের বিরুদ্ধে কাজ করতে সক্ষম।

* ইউইউ তু ‘আর্টিমাইসিনিন’ নামে নতুন একটি ওষুধ আবিষ্কার করেন। ‘আর্টিমাইসিনিন’ ওষুধ ম্যালেরিয়ায় আক্রান্ত হয়ে মানুষের মৃত্যুর হার আশ্চর্জজনকভাবে কমিয়ে এনেছে।

Comments

comments

Comments are closed.