প্রচ্ছদ > অর্থ-বাণিজ্য > অনলাইনে সহজে আয়কর
অনলাইনে সহজে আয়কর

অনলাইনে সহজে আয়কর

হাসান ইমাম ::: 
তথ্যপ্রযুক্তির সঙ্গে তাল মিলিয়ে এবার পাল্টে গেল দেশের আয়কর সনদ (ইনকাম ট্যাক্স সার্টিফিকেট) প্রদান পদ্ধতি। ট্যাক্স আইডেন্টিফিকেশন নম্বর (টিআইএন) নিতে এত দিন ছিল নানা ঝক্কিঝামেলা। এমন অসুবিধাকে এবার বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) চালু করেছে ই-টিআইএন। ইন্টারনেটের মাধ্যমে এখন সব কাজ হয়ে যাবে মুহূর্তেই। চলতি বছরের ১ জুলাই থেকে চালু হওয়া ই-টিআইএন সবার জন্য বাধ্যতামূলক করেছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড। যাঁরা এখনো ই-টিআইএন করেননি, তাঁদের আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে এটা সম্পন্ন করতে হবে।
জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সদস্য (করনীতি) সৈয়দ মো. আমিনুল করিম ই-টিন নিয়ে বললেন, এখন তো করদাতার হয়রানির কোনো সুযোগ নেই। সব কিছুই অনলাইনে হওয়ার কারণে বাড়তি সময় বা শ্রম কোনোটাই লাগছে না। পুরোনো সফটওয়্যার বদলে রাজস্ব বোর্ড এবার আধুনিক সফটওয়্যারের মাধ্যমে ই-টিআইএন চালু করেছে। এখানে সহজেই একজন ব্যক্তি তার রেজিস্ট্রেশনের মাধ্যমে ইনকাম ট্যাক্স সার্টিফিকেট সংগ্রহ করতে পারবেন। এ ছাড়া ই-পেমেন্টও চালু রয়েছে। ২০১৪ সালের মধ্যে চালু হচ্ছে অনলাইন রিটার্ন পেমেন্ট।

কীভাবে রেজিস্ট্রেশন করবেন
শুরুতেই আপনাকে আয়করের ওয়েবসাইটে যেতে হবে, ঠিকানা: www.incometax.gov.bd। এবার রেজিস্ট্রার অপশনে ক্লিক করুন। এখানে আপনার ইউজার আইডি (কমপক্ষে ৮ অক্ষরে) এবং পাসওয়ার্ড (কমপক্ষে ৮ অক্ষরের) চাইবে। এরপর আবার পাসওয়ার্ড লিখতে হবে। এবার অনেকগুলো নিরাপত্তা প্রশ্ন আছে, যেখান থেকে আপনার পছন্দের একটি প্রশ্ন বেছে নিয়ে উত্তর টাইপ করুন। আপনার দেশ, মুঠোফোন নম্বর, ই-মেইল এবং ভেরিফিকেশন লেটার টাইপ করুন।
এরপর নিচের রেজিস্টারে ক্লিক করুন। কিছুক্ষণের মধ্যেই আপনার মুঠোফোনে একটা অ্যাকটিভিশন কোড চলে আসবে। অনলাইনে সেটা লিখেদিন। এবার লগ-ইন করে টিআইএন রেজিস্ট্রেশনের ফরম পূরণ করতে শুরু করুন। যাঁদের ১০ ডিজিটের পুরোনো নম্বর রয়েছে, তাঁরা পুনরায় রেজিস্টারে ক্লিক করে নতুন ১২ ডিজিটের নম্বর নিতে পারবেন।
এখানে একে একে করদাতার ধরন, রেজিস্ট্রেশনের ধরন, আয়ের প্রধান উৎস, লোকেশন, বেসিক ইনফরমেশন (এখানে করদাতার জাতীয় পরিচয়পত্রের অনুকরণে সব তথ্য দিতে হবে। কারণ, এটা জাতীয় পরিচয়পত্রের সঙ্গে মিলিয়ে দেখা হবে।) এরপর তার ঠিকানা দিতে হবে। নিচে আরেকবার তথ্যগুলো চেক করে নেওয়ার সুযোগ পাবেন। এখানে কিছু ভুল হলে পুনরায় ঠিক করে নিয়ে সাবমিট করতে হবে। এবার করদাতার টিআইএন নম্বর এবং টিআইএন সনদ তৈরি হয়ে আসবে। এই সনদ আপনি চাইলে সরাসরি প্রিন্ট, ই-মেইল বা সেভ করে নিতে পারবেন। ফরম পূরণে যেকোনো স্থানে আটকে গেলে ইউজার গাইড অপশন ক্লিক করে সমাধান পাবেন। এ ছাড়া ডায়াল করতে পারেন ০৯৬১১-৭৭৭১১১ নম্বরে।

মনে রাখবেন
২০১৪ সালের শুরুতেই পুরোনো ১০ ডিজিটের টিআইএন নম্বর বাতিল হয়ে যাবে। তাই যত দ্রুত সম্ভব নতুন ই-টিন করে নিতে হবে।

 

Share and Enjoy !

0Shares
0 0

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*