প্রচ্ছদ > ভোজন > হোম সার্ভিস > ভোজনরসিক বাঙালির ফুডপাণ্ডা
ভোজনরসিক বাঙালির ফুডপাণ্ডা

ভোজনরসিক বাঙালির ফুডপাণ্ডা

আরিফুল ইসলাম আরমান :::
যানজট ঠেলে হরেক রকমের খাবারের দোকানে গিয়ে বসাটা দিন দিন কঠিন হয়ে যাচ্ছে। এনিয়ে শহুরে মানুষের যন্ত্রণার শেষ নেই। সাধ ও সাধ্য থাকলেও যানজট আর ব্যস্ততার কারণে খেতে পাচ্ছেন না পছন্দের খাবার।
আধুনিক তথ্যপ্রযুক্তির এই সময়ে এসব সমস্যা সামধানে উদ্যোগের শেষ নেই। ফাস্টফুড, চায়নিজ কিংবা দেশিয় অনেক খাবারের দোকান চালু করেছে ‘হোম সার্ভিস’। তাও হোটেলের ঝঁক্কি সামলাতে গিয়ে সেখানেও দেখা যায় সময় সংকট। তবে এক্ষেত্রে অনলাইনভিত্তিক প্রতিষ্ঠান ফুডপাণ্ডা.কম অনেক এগিয়ে।
ফুডপাণ্ডার কাজটা খুব সহজ। তারা খাবার প্রস্তুতকারী বা সরবরাহকারী কোনো প্রতিষ্ঠান নয়। শুধু খাবারের অর্ডার সংগ্রহ করাই তাদের কাজ। যে কেউ যা খেতে চায়, তাদের পছন্দের খাবার, পছন্দের জায়গা থেকে ঘরে পৌঁছানোর ব্যবস্থা করছে ফুডপাণ্ডা।
ফুডপাণ্ডা বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আব্রিন রেজা জানান, গত বছরের নভেম্বর থেকে ঢাকায় সেবা দিচ্ছে ফুডপাণ্ডা। খুব শিগগিরই চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, সিলেটসহ সব জেলায় এই সেবা দেওয়া হবে।
শুধু যে ওয়েবসাইট থেকেই অর্ডার দেওয়া যাবে, তা নয়। খাবারের অর্ডার দেয়া সহজ করে দিতে ফুডপাণ্ডা তৈরি করেছে মোবাইল অ্যাপ। যার মাধ্যমে মোবাইল ফোন থেকেও খাবারের অর্ডার দেওয়া যাবে। বাংলাদেশ ছাড়াও বিশ্বের ৩৬ দেশ থেকে এই অ্যাপ ব্যবহার করে ফুডপাণ্ডার সেবা পাওয়া যাবে বলে জানিয়েছেন ফুডপাণ্ডা বাংলাদেশের বিজনেস ডেভেলপমেন্ট ব্যবস্থাপক তাজবীর হাসান।
এজন্য যেতে হবে www.foodpanda.com.bd সাইটে। সেখানে রয়েছে সকল বিস্তারিত তথ্য। সঙ্গে অর্ডার দেওয়ার সব নিয়মকানুন। ঘরে বসেই পছন্দের রেস্টুরেন্ট থেকে পছন্দের খাবার অর্ডার দেয়ার সঙ্গে সঙ্গেই ফুডপাণ্ডার পক্ষ থেকে দেয়া হবে এসএমএস ও ডেলিভারির সময়।
ফুডপাণ্ডার সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও গ্লোবাল ব্যবস্থাপনা পরিচালক রাল্ফ ওয়েনজেল জানান, ইন্টারনেট বিশ্বে ফুডপাণ্ডা ইতোমধ্যেই জনপ্রিয়তা পেয়েছে। ফুডপাণ্ডার উন্নত সেবা প্রদানে সবসময় প্রস্তুত। খুব সহজে ওয়েবসাইট বা অ্যাপের মাধ্যমে খাবারের অর্ডার দেওয়ার এই সুবিধার জন্য অনেকে ফুডপাণ্ডাকে ‘অ্যামাজন অব ফুড’ বলে থাকেন।
ওয়েবসাইট ও মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে বাংলাদেশ ছাড়াও ভারত, আর্জেন্টিনা, ব্রাজিল, চিলি, রাশিয়াসহ পৃথিবীর ৩৬টি দেশে সেবা দিচ্ছে ফুডপাণ্ডা। এজন্য বিশ্বের ২২ হাজারের বেশি হোটেলের সঙ্গে তাদের চুক্তি হয়েছে। এনিয়ে আরও জানতে ভিজিট করুন  www.foodpanda.com.bd
যুক্ত হতে পারেন ফুডপাণ্ডা বাংলাদেশের ফেসবুক পেইজে। সম্প্রতি এই পেইজকে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ ভেরিফাইড করে নীল রঙের বৃত্তে সাদা টিক চিহ্ন দিয়েছে। আর এই পেইজে এরই মধ্যে লাইক দিয়েছেন ৮ লাখের বেশি ফেসবুক ব্যবহারকারী। ফেসবুক পেইজের ঠিকানা: www.facebook.com/FoodpandaBangladesh

Share and Enjoy !

0Shares
0 0

Comments

comments

Comments are closed.