প্রচ্ছদ > স্বাস্থ্য > বিশেষজ্ঞ চেম্বার > বিনা মূল্যে ৩০ হাজার ছানি রোগীর অপারেশন
বিনা মূল্যে ৩০ হাজার ছানি রোগীর অপারেশন

বিনা মূল্যে ৩০ হাজার ছানি রোগীর অপারেশন

সারা দেশে বিনা মূল্যে ৩০ হাজার ছানি রোগীর অপারেশন করতে যাচ্ছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ন্যাশনাল আই কেয়ার, বেসরকারি সংস্থা সাইটসেভার্স এবং ১০টি বেসরকারি সহযোগী সংস্থার হাসপাতাল। অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে জুন থেকে ডিসেম্বরের মধ্যে এ কার্যক্রম পরিচালিত হবে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. দ্বীন মো. নুরুল হক জানান, কার্যক্রমের অংশ হিসেবে সর্বস্তরের মানুষকে পেশেন্টস স্ক্রিনিং প্রোগ্রাম (পিএসপি) করা হবে। গরীব রোগী যাদের ছানি অপারেশন করা প্রয়োজন তাদের বিনা মূল্যে অপারেশন করা হবে। দেশের ৪২ জেলায় এ কার্যক্রম সফলভাবে বাস্তবায়নের লক্ষ্যে বিভিন্ন সহযোগী সংস্থার মধ্যে ছানি অপারেশন টার্গেট ও ডুপ্লিকেশন এড়িয়ে এলাকা বণ্টন করা হয়েছে।

রাজধানীর ব্র্যাক ইন সেন্টারে এ সর্ম্পকে এক সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়। অনুষ্ঠানে ন্যাশনাল আই কেয়ার, সাইটসেভার্সসহ বিভিন্ন সহযোগী সংস্থার প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

ন্যাশনাল আই কেয়ারের লাইন ডাইরেক্টর অধ্যাপক ডা. জালাল আহমেদ বলেন, সহযোগী সংস্থাগুলো স্ট্যান্ডার্ড ক্যাটারেক্ট সার্জিক্যাল প্রোটোকল অনুসরণ করে তাদের প্রশিক্ষিত ও দক্ষ মেডিকেল টিমের মাধ্যমে ছানি অপারেশন করবে। ছানি রোগীদের অপারেশনের জন্য বা সেবা প্রদান বাবদ কোনো ফি নেওয়া হবে না।

সাইটসেভার্স বাংলাদেশের দেশীয় পরিচালক ডা. মোহাম্মদ গোলাম কিবরিয়া বলেন, সাইটসেভার্সের দরিদ্র এবং হতদরিদ্র ছানি রোগীদের প্রকল্পের নিয়ম অনুসারে শতভাগ বিনা মূল্যে ছানি অপারেশন করানো হবে।

সহোযোগী সংস্থাগুলো অপারেশন করা ছানি রোগীদের আউট পেশেন্ট ডিপার্টমেন্ট (ওপিডি), ভিশনসেন্টার, সাব সেন্টার, পিএসপি অথবা স্পেশাল ফলোআপ প্রোগ্রামের ব্যবস্থা থাকবে। ফলোআপ ভিজিটের সময় রোগীদের কাছ থেকে ফি নেওয়া যাবে না।

ডা. কিবরিয়া আরো উল্লেখ করেন, রোগীর সুবিধার্থে অপারেশনের সময় গাড়িতে করে হাসপাতালে আনা-নেওয়ার ব্যবস্থাও এ কার্যক্রমের অন্তর্ভুক্ত হবে।

সহযোগী সংস্থার সংশ্লিষ্ট হাসপাতাল
আদ্-দ্বীন (কুষ্টিয়া, যশোর, খুলনা ও ঢাকা), ঢাকা প্রোগ্রেসিভ লায়ন্স (নরসিংদী, নারায়ণগঞ্জ, মাদারীপুর), কাশেম ফাউন্ডেশন (কুড়িগ্রাম, নীলফামারী), গাউসল আজম বিএনএসবি আই হাসপাতাল (দিনাজপুর), প্রফেসর এম এ মতিন মেমোরিয়াল বিএনএসবি বেইস আই হাসপাতাল (সিরাজগঞ্জ, পাবনা, নাটোর), বগুড়া মিশন হাসপাতাল (বগুড়া), বাংলাদেশ জাতীয় অন্ধ কল্যাণ সমিতি- কুমিল্লা (কুমিল্লা), ভলান্টারি অ্যাসোসিয়েসন ফর রুরাল ডেভেলপমেন্ট, (ভাড) কুমিল্লা, ঢাকা-সাভার, ধামরাই, মানিকগঞ্জ ও দোহার), ডা. কে জামান বিএনএসবি আই হাসপাতাল, ময়মনসিংহ (ময়মনসিংহ, শেরপুর ও নেত্রকোনা), কক্সবাজার বায়তুশ শরীফ হাসপাতাল (কক্সবাজারের চট্টগ্রাম জেলার লোহাগড়া, সাতকানিয়া, বাশখালী, পটিয়া,আনোয়ারা, বোয়ালখালী, হাটাজারী, রাওজান, চন্দনাইস), চট্টগ্রাম (রাংগুনিয়া) এবং বান্দরবন।

Share and Enjoy !

0Shares
0 0

Comments

comments

Comments are closed.