প্রচ্ছদ > তথ্যপ্রযুক্তি > প্রযুক্তি পণ্য > অবশেষে অ্যাপলের ইয়োসেমিটি
অবশেষে অ্যাপলের ইয়োসেমিটি

অবশেষে অ্যাপলের ইয়োসেমিটি

অবশেষে ডেস্কটপ অপারেটিং সিস্টেম ম্যাক ওএস এক্সের নতুন ভার্সন ‘ওএস এক্স ১০.১০ ইয়োসেমিটি’ দেখিয়েছে অ্যাপল। এ মাসের শুরুতেই স্যান ফ্রান্সিকোতে চলতি ওয়ার্ল্ডওয়াইড ডেভেলপার্স কনফারেন্সে (ডব্লিউডব্লিইডিসি) ওএস এক্সের নতুন বিটা ভার্সনটি অ্যাপ ডেভেলপারদের জন্য উন্মোচন করেছে মার্কিন টেক জায়ান্ট প্রতিষ্ঠানটি।

প্রযুক্তিবিষয়ক সাইট ম্যাশএবল জানিয়েছে, গত কয়েক মাস ধরে প্রযুক্তিজগতের গুজব আর ভবিষ্যদ্বাণী সত্যি প্রমাণিত করে অ্যাপল নতুন ওএস এক্সের নামকরণ করেছে ‘ইয়োসেমিটি ন্যাশনাল পার্কের’ নাম অনুসারে।

আইওএস ৭ উন্মোচনের পরপরই ওএস এক্সেও বড় পরিবর্তন আসছে বলে ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন প্রযুক্তিবোদ্ধাদের অনেকেই। সেই ভবিষ্যদ্বাণীও সত্যি প্রমাণ হয়েছে ডব্লিইডব্লিইডিসিতে। নতুন করে ডিজাইন করা হয়েছে ডক, যোগ করা হয়েছে টু ডাইমেনশনাল আইকন, জোর দেওয়া হয়েছে স্বচ্ছতা এবং ব্যবহারের সুবিধার উপর।

নোটিফিকেশান সেন্টারে যোগ হয়েছে ‘ডে ভিউ’, যা এক্সটেন্ড করা যাবে অ্যাপ স্টোরের উইজেট দিয়ে। আইওএসের নোটিফিকেশান সেন্টারের সঙ্গে অনেকটা মিল রয়েছে ইয়োসেমিটির নোটিফিকেশান সেন্টারের। আইওএস এবং ওএস এক্স ডিভাইস পাশাপাশি সমান তালে ব্যবহারের জন্য অ্যাপল যে ‘কন্টিনিউইটি’ ফিচার নিয়ে এসেছে তা অনেক সহজ করে দেবে এটি।

স্পটলাইট সার্চেও নতুন ফিচার যোগ করেছে অ্যাপল। সার্চ বারটি এখন থাকবে স্ক্রিনের একদম মাঝখানে। সার্চের সময় সাজেশনও দেবে স্পটলাইট। দেখতে অনেকটাই পুরোদস্তুর ওয়েব ব্রাউজারের মতোই হবে স্পলাইটের সার্চবার।

নতুন করে ডিজাইন করা হয়েছে সাফারি ওয়েব ব্রাউজারও। আরও চিকন করা হয়েছে সাফারির মেনু বার। সরিয়ে নেওয়া হয়েছে ফেভারিট বার। কেবল অ্যাড্রেস বারে টাইপ করার সময়ই দেখা মিলবে ফেভারিট বারের।

এয়ারড্রপ এখন কাজ করবে আইওএস এবং ইয়োসেমিটির মাঝের যোগসূত্র হিসেবে। একই ডকুমেন্ট বা অ্যাপ্লিকেশনে ডেস্কটপ এবং মোবাইল ডিভাইসেও কাজ করা যাবে ইয়োসেমিটি থেকে। আর ম্যাক, আইওএস এবং উইন্ডোজের মধ্যে ফাইল শেয়ারিংয়ের জন্য আইক্লাউড ড্রাইভ নিয়ে এসেছে করেছে অ্যাপল। এছাড়াও আইওএস ডিভাইস আশপাশে থাকলেই টের পেয়ে যাবে ইয়োসেমিটি, যোগাযোগ স্থাপন করবে ডিভাইসটির সঙ্গে।

Share and Enjoy !

0Shares
0 0

Comments

comments

Comments are closed.